হ’ঠাৎ শা’রীরিক মি’লন ব’ন্ধ করলে মেয়েদের যা হয়, সকল ছেলেদের জা’না উ’চিৎ

হ’ঠাৎ শা’রীরিক মি’লন ব’ন্ধ করলে মেয়েদের যা হয়, সকল ছেলেদের জা’না উচিৎ স্বামী-বিয়োগ, বিবাহ-বি’চ্ছেদ, বা অন্য শহরে চাকরি, এধ’রনের নানাবিধ কারণে মি`লন’তা হা’রিয়ে যেতে পারে না’রীর থেকে।

Advertisements

এতে অনেক সময় ক্ষ’তিগ্র’স্থ হয় না’রী শ’রীর। মা’নসিক দিক থেকে সুখ ও শান্তি চলে যায়। অনেক দেখা দেয়। তবে কিছু ক্ষেত্রে ভালোও হয়। ভালো-ম’ন্দ মিলিয়ে স’হবা’স ব’ন্ধ হওয়ার কারণে কী কী আসে জে’নে নিন

আগের চেয়ে অনেক বেশি উ’তলা করে তোলে: আম’রা সবাই জানি, মি’লন হ’তাশা, হাঁ’হুতাশ মে’টাতে সাহায্য করে।

কিন্তু কোনও অ’জ্ঞাত কারণে যদি না’রীর জীবনে স’হবা’সের চ্যা’প্টার ব’ন্ধ হয়ে যায়, তবে মা’নসিক তৈরি হতে পারে। কথায় কথায় মন খা’রাপ, কিছু ভালো না লা’গা, কারণে অকারণে অ’তিরিক্ত রা’গ জ’ন্মাতে শুরু হতে পারে।

মানুষের স’ঙ্গে দু’র্ব্য’বহার ক’রতেও শুরু করে দিতে পারেন সেই না’রী। স্ক’টিশ গবেষকদের পরীক্ষায় জা’না যায়, স’হবাস ব’ন্ধ হয়ে গেছে এমন ম’হিলাদের নাকি লোকের স’ঙ্গে কথা বলতেও অসুবিধে হয়।

এর কারণ, স’হবা’স করার সময় থেকে যে ফি’ল গু’ড কে’মিক্যাল এ’ন্ডোর্ফিন ও অ’ক্সিটোসিন নিঃ’সরিত হয়, তা ব’ন্ধ হয়ে যাওয়া। ই’উরিনারি ট্র্যা’ক্ট ই’নফেকশন হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়: স’ঙ্গ’মের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মূ’ত্র’নালীতে সং’ক্রমণ হতে পারে।

প্র’স্রাবের সময় জ্বা’লায’ন্ত্রণা শুরু হতে পারে তখন। কিন্তু স’হবাস করা ব’ন্ধ হয়ে গেলে ই’উরিনারি ট্র্যা’ক্ট স’ম্ভাবনা অনেকটাই কমে যায়। স’র্দি কা’শি প্র’তিরো’ধ ক্ষ’মতা কমে যায়: মি’লন- করলে শ’রীরে রো’গ-জী’বাণুর প্র’বেশ ক’ষ্টকর হয়ে ওঠে।

Related posts

Leave a Comment