রাতে ৫ বার স’হ’বাসের পরও আবার চাইতো

আ’সক্তিকে একটি রো’গ হিসাবে তালিকাভুক্তি এবং চিকি’ৎসার জন্য দা’বি তুলেছে দাতব্য প্রতিষ্ঠান রিলেট। যুক্তরাজ্যের জাতীয় চিকিৎ’সা সেবার মধ্যে সেটিকে অন্তর্ভুক্ত করার দা’বি করছেন।

Advertisements

বিবিসির স’ঙ্গে কথা বলেছেন এমন দুইজন রো’গী, যারা অনেকদিন এই স’মস্যাটি মো’কাবেলা ক’রেছেন। তিন সন্তানের জননী রেবেকা বার্কার বলছেন, ”এটা ছিল অসহ্য একটি ব্যাপার যে, দিনে পাঁচবার করার পরেও তা আমা’র জন্য যথেষ্ট ছিল না।”

প্রতা’রণা করার বদলে তিনি তার সঙ্গীকে বার’বার মিলিত হতে বলতেন। ”ঘুম থেকে ওঠার পরে প্রথমে এটার চিন্তাই আমা’র মাথায় প্রথমে আসতো। অনেক চেষ্টা করেও সেটা আমি মাথা থেকে সরাতে পারতাম না। বলছেন ৩৭ বছরের নর্থ ইয়র্কশায়ারের এই বাসিন্দা।”

মিজ বার্কার বলছেন, ঘুম থেকে ওঠার পরে প্রথমে এটার চিন্তাই আমা’র মাথায় প্রথমে আসতো” সবকিছুর স’ঙ্গে যেন আমি এর মিল খুঁজে পেতাম। আমি মনে করি, এটা আমা’র বিষণ্ণতা আর সেরোটোনিনের অভাবের স’ঙ্গে জড়িত ছিল। আমা’র পুরো শ’রীর যেন এটাচাইতো।”

Related posts

Leave a Comment