‘কাউকেই ঠকাতে পারবে না’- তাই দুই প্রে’মিকাকেই বিয়ে করলেন যুব’ক!

একজন নয়, এক স’ঙ্গে দু’দুজন নারীকে বিয়ে করলেন ২৪ বছর বয়সী এক যু’ব’ক। এমন ঘ’টনা ঘ’টেছে ভা’রতের ছত্তিশগড়ের বস্তার জে’লায়।বিয়ের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিবারের লোকজন থেকে শুরু করে গ্রামবাসীরা। আর যু’ব’কের কী’র্তি দেখে অ’বাক হয়েছেন সকলেই।

Advertisements

চন্দু মৌর্য নামে ওই যু’ব’ক জা’নান যে দুই ত’রু’ণীই তাকে ভালবাসে। তাই তিনি কাউ
কেই ঠ’কাতে পারবেন না। তাই দু’জনকেই একস’ঙ্গে বিয়ে করার সিদ্ধা’ন্ত নিয়েছেন। চন্দু আরো জা’নান, দু’জনই তাঁর স’ঙ্গে সারাজীবন থাকতে রাজি আছেন।

ফলে দুই স্ত্রী’ নিয়ে তার বিবাহিত জীবন আরও সুন্দর হবে বলেই আশাবাদী বছর চব্বিশের যু’ব’ক। কিন্তু দুই ত’রু’ণীই কী’ভাবে তাঁর প্রে’মে পড়ে গে’লেন? জা’না গেছে, একবার বস্তারের তোকপাল এলাকায় একটি ইলেকট্রিকের পোল লা’গাতে যায় চন্দু।

সেখানে ২১ বছরের সু’ন্দরী কাশ্যপের প্রে’মে প’ড়েন পেশায় দিনমজুর ও কৃষিকাজে’র স’ঙ্গে যু’ক্ত যু’ব’ক। দু’জনে বিয়ে করবেন বলে সিদ্ধা’ন্ত নেন।কিন্তু বছর ঘুরতে না ঘুরতেই তার গ্রাম তি’ক্রাল’ঘ’নায় একটি বিয়ের

অনুষ্ঠানে হাসিনা বাঘেল (২০) নামে অন্য এক ত’রু’ণীর প্রে’মে প’ড়ে যায় চন্দু। সেই টানও অগ্রা’হ্য ক’রতে পারেন না। চন্দুর দা’বি, তার প্রে’মিকা রয়েছে জে’নেও হাসিনা তার স’ঙ্গে স’ম্পর্কে জড়াতে চায়।

এরপর চন্দু তার দুই প্রে’মিকার মধ্যে আলাপ-পরিচয় করিয়ে দেন। তিনজন একস’ঙ্গে চন্দুর বাড়িতে তার পরিবারের স’ঙ্গে থাকার সিদ্ধা’ন্ত নিয়েছেন। তবে বিয়ের অনুষ্ঠানে হাসিনার পরিবারের লোকজন উপস্থিত থাকলেও ছিলেন না সু’ন্দরীর তরফের কেউ। গত ৫ জানুয়ারি বিয়ে হয় তিনজনের।

Related posts

Leave a Comment