নারীরা ৫ ধরনের পুরুষকে একবার হলেও সঙ্গী হিসেবে পেতে চায়

বিশেষজ্ঞদের মতে, নারীরা জী’বনসঙ্গী যেমনই চেয়ে থাকুক না কেন, তাদের স্ব’প্নের পুরুষটি কিন্তু ভিন্ন হতে পারে।

Advertisements

হয়তো জী’বনসঙ্গী হিসেবে তিনি আদর্শ নন, কিন্তু জীবনে একবার হলেও এমন পুরুষের সঙ্গে সময় কা’টাতে বা তার দেখা পেতে চান না’রীরা। না’রীরা একবার হলেও এমন পুরুষকে অন্তত বন্ধু হিসেবে পেতে চান।

দেখে নিন কেমন পুরুষকে নারীরা একবার হলে ও পেতে চান। ১. মনোযোগ কে’ড়ে নেন বার বার: এ ধরনের পুরুষরা তার প্রতিটি কাজে স’ঙ্গিনীর মতামত জানতে চান। না’রীরা এ ধরনের পু’রুষকে দারুণ ভালোবাসেন। এদেরকে তারা জীবনের সত্যিকার স’ঙ্গী বলে মনে করেন। সব না’রীই চান তার প্রতিটি বিষয়ে স’ঙ্গীর মনোযোগ থাকুক।

আবার স’ঙ্গীর ইচ্ছা-অ’নিচ্ছাতে স’ঙ্গিনীর মতামতের বিষয়েও সচেতন তারা। এমন পুরুষ কোন নারীর অ’পছন্দ হতে পারে! ২. বিশেষ ক্ষেত্রে হিং’সুটে: পুরুষদের ব্যক্তিত্বের সঙ্গে হিং’সে বিষয়টা বে’মানান। কিন্তু সবকিছুতে হিং’সুটে পুরুষকে কোনো না’রীই পছন্দ করেন না। শুধু একটি ক্ষেত্রে হিং’সুটে পুরুষ না’রীদের দারুণ পছন্দের।

তা হলো, অন্য কোনো পুরুষ সঙ্গিনীর দিকে তাকালে বা স’ঙ্গিনী অন্য পু’রুষের সঙ্গে মে’লামেশা করলে যে পু’রুষ হিং’সুটে হয়ে ওঠেন, সে পু’রুষকে কাছের মানুষ হিসেবে পেতে চান না’রীরা। ৩. ক্ষমাশীল যারা: এ ধরনের পুরুষরা মনে আ’ঘাত দিতে পারেন। আবার আ’ঘাত পেলে ক্ষ’মাও করতে পারেন। হয়তো স’ঙ্গিনীর পো’শাকের রুচি’বোধ নিয়ে ক’টুক্তি করলেন।

কিন্তু তা মজা করে, সিরিয়াস নয়। আবার স’ঙ্গিনী তার কোনো বিষয় নিয়ে বাজে কথা বললেও তারা তা মনে ধরে রাখেন না। স’ঙ্গিনী ভুল বুঝত পারুন বা না পারুন, স’ঙ্গী ঠিকই ক্ষমা করে দেন। এমন পুরুষের প্রতিও না’রীদের আ’কর্ষণ কম নয়। ৪. সেরা বন্ধু: এরা একেবারে মনের মানুষটি হয়ে ওঠেন। হয়তো ছে’লেটির সঙ্গে বড় হয়ে উঠেছেন। ছো’টকালে একসঙ্গে খেলাধুলা করতেন।

তাকে মনের যেকোনো কথা নি’শ্চিন্তে বলতে পারেন আপনি। হয়তো অন্য কোনো ছেলে বন্ধুদের কথা ও কাজে আ’ঘাত পেয়েছেন এবং ওই সময়টা এই বন্ধুটিও মনটা ভালো করে দিয়েছেন। এমন ভালো বন্ধু কে না পেতে চান? সাধারণত এমন কাছের বন্ধুকে সব সময় স্রে’ফ বন্ধুই মনে হয়। কিন্তু কোনো একটা অভাব বোধ কাজ করে। প্রায়ই মনে হয়, বন্ধুটিকে ভালোবাসেন আপনি। এমন র’হস্যপূর্ণ ব’ন্ধুত্বের দারুণ পা’গল মেয়েরা। জীবনে একবার হলেও এমন ব’ন্ধুর দেখা পেতে চান।

৫. উ’চ্ছ্বলতায় ভরপুর: এই বন্ধুটি হয়তো অদ্ভুত সুন্দর মে’সেজ পাঠান। গভীর রাতে ফোন দিয়ে সামান্য কথা বলেন। হঠাৎ করেই কোথাও ঘু’রতে নিয়ে যান। আপনার ব’ন্ধুদের পা’র্টিতে গিয়ে এক ঝলক আপনাকে দেখা দিয়ে উ’ধাও হয়ে যান। আপনাকে এমন নানা ম’ধুর য’ন্ত্রণায় ফেলে রাখেন বন্ধুটি। হয়তো দিনের বেশিরভাগ স’ময়টাই তিনি একাই অথবা নিজের বন্ধুদের সঙ্গে কা’টান। জীবনে একটিবার এমন ব’ন্ধুর স্ব’প্ন দেখের না’রীরা।

Related posts

Leave a Comment